কেন সূর্যের বাইরে তাপমাত্রা পৃষ্ঠের তুলনায় গরম?

53

এটি সূর্য নিয়ে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় একটি রহস্যময় বিষয়। কেন সূর্যের বাইরে তাপমাত্রা পৃষ্ঠের তাপমাত্রা চেয়ে বেশি।

ইউনিভার্সিটি অফ মিশিগানের গবেষকরা বলতে চাইছে যে তারা এর রহস্য উদঘাটন করেছে। এবং তারা না পার্কার সোলার প্রোব ধারা এর প্রমাণ দিবে।

দুই বছরের মধ্যে এই সোলার প্রোব সূর্যের এমন জায়গায় পৌঁছাবে যেখানে আজ পর্যন্ত মানুষের কোন বাহন পৌঁছাতে পারেনি।

তারা তাদের তত্ত্ব প্রমাণ করবে যে ছোট তরঙ্গ দৈর্ঘ্যের কারণে সূর্যের এই আচরণ লক্ষ করা যায়।

এই রহসস্য সমাধান করতে পারলে বিজ্ঞানীরা আরও ভালভাবে বুঝতে পারবে এবং সৌর আবহাওয়া পূর্বাভাস দিতে পারবে , যা পৃথিবীর পাওয়ার গ্রিডে গুরুতর হুমকি সৃষ্টি করতে পারে।

এবং এই রহস্য সমাধানের প্রথম প্রশ্ন টি হল সূর্যের বাইরের বায়ুমণ্ডলের তাপমাত্রা কোথায় শুরু হয় এবং কোথায় শেষ হয়। কিভাবে সূর্যের বাইরের বায়ুমণ্ডলের তাপমাত্রা এত বৃদ্ধি পায় এটি একটি 500 বছরের প্রশ্ন। আগামী দুই বছরের মধ্যে সোলার প্রবটি এর উত্তর বের করবে।

ইউ-এম তত্ত্ব, এবং কিভাবে পার্কার এটি পরীক্ষা করার জন্য দলটি ব্যবহার করবে, 4 জুন প্রকাশিত একটি পত্রিকায় দ্য অ্যাস্ট্রোফিজিক্যাল জার্নাল লেটারস এ পেশ করা হয়েছে।

কিছু আয়ন আছে যা অন্যান্য হাইড্রোজেন থেকে 10 গুণ বেশি গরম হয়। এটি একটি কারণ হতে পারে সূর্যের পৃষ্ঠের চেয়ে বাইরের তাপমাত্রা বেশি গরম হওয়া।

এত বেশি তাপমাত্রার কারণে সোলার অ্যাটমস্ফিয়ার সূর্যের আয়তন এর চেয়ে অনেক বেশি হয়।

সামনের বছরগুলোতে পার্ক আরতি আলভিন পয়েন্ট পর্যন্ত চলে যাবে। বিজ্ঞানীরা বলছে যে 2021 সালের মধ্যে এটি সূর্যের আউটার অ্যাটমস্ফিয়ার এর মধ্যে চলে যাবে।

“পার্কার সৌর অনুসন্ধানের মাধ্যমে আমরা নিশ্চিতভাবে স্থানীয় পরিমাপের মাধ্যমে নির্ধারণ করতে সক্ষম হব যে কোন প্রক্রিয়াগুলি সূর্য বাতাসের ত্বরণ এবং নির্দিষ্ট উপাদানের অগ্রাধিকার গরমকরণের দিকে পরিচালিত করে।” “এই প্রবন্ধের ভবিষ্যদ্বাণীগুলি সূচিত করে যে এই প্রক্রিয়াগুলি আলফেনের পৃষ্ঠের নিচে চলছে, কোনও মহাকাশযান পরিদর্শন করে এমন সূর্যের কাছাকাছি একটি অঞ্চল, যার অর্থ এই অগ্রাধিকার গরম প্রক্রিয়াগুলির পূর্বে সরাসরি পরিমাপ করা হয়নি।”

ক্যাসপার সৌর বায়ু ইলেকট্রন আলফা এবং প্রোটন ইনভেস্টিগেশন এর পার্কার সৌর প্রোবের প্রধান তদন্তকারী। SWEAP এর সেন্সরগুলির গতিবেগ, তাপমাত্রা এবং ঘনত্ব পরিমাপ করার জন্য প্রতিটি প্রতিযোগিতার সময় সৌর বায়ু এবং জ্যোতির্বলাকার কণাগুলিকে চাঙ্গা করে এবং গরম রহস্যের উপর হালকা চালায়।

গবেষণা নাসা এর বায়ু মিশন দ্বারা অর্থায়ন করা হয়।

Journal Reference

আরো পড়ুন -
 “মিল্কি ওয়েতে অজানা বস্তু” – সূর্যের চেয়ে লক্ষ গুন ভরের একটি বস্তু মিল্কি ওয়ে ভেদ করে চলেছে 
 মঙ্গল গ্রহে অনেক বড় বরফের খন্ড পাওয়া গিয়েছে